ব্যবসায়ের জগতে সবচেয়ে জনপ্রিয় ব্যবসা হলো মুদি মালের ব্যবসা। মানুষের নিত্য প্রয়োজিসপত্র সব মুদি দোকানে পাওয়া যায়। সে জন্য আমাদের বাংলাদেশের অধিকাংশ মানুষ মুদি মালের দোকান দিয়ে থাকেন। তাছারা এই ব্যসায় কোন লোকসান হয় না। এই ব্যবসা করলে অধিক লাভবান হওয়া যায়। বর্তমানে দেখা যায় যে প্রতিটি গ্রামে গ্রামে ছোট ছোট বাজার রয়েছে। সেখানে অধিকাংশ দোকানেই মুদি মালের দোকান দিয়ে থাকেন। আর এই মুদি মালের ব্যবসায় অনেক চাহিদা রয়েছে। বর্তমানে মুদি মালের খুচরা ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান ভোক্তাগণ তাদের উদ্দেশ্যে বিভিন্ন র‍্যাক হতে চাহিদা ও পছন্দমতো পণ্যদ্রব্য সংগ্রহ করতে হবে। যাতে করে খুচরা ব্যবসায়ীগন আপনার পণ্যটাকে ক্রয় করতে আগ্রহি থাকে। আপনি চাইলে আজি এই মুদি মালের পাইকারি ব্যবসা শুরু করতে পারেন।

মুদি মালের পাইকারি ব্যবসা কী?

পাইকারি ব্যবসায়ী হচ্ছে কোন ব্যক্তি, ফার্ম বা প্রতিষ্টান যে বা যারা পুনরায় বিক্রয় করার জন্য পণ্যদ্রব্য ক্রয় করে। এরা কখনও চূরান্ত ভোক্তার নিকট পণ্য বিক্রয় করে না।  এক কথায় পাইকারি ব্যবসায় লিপ্ত ব্যাক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে পাইকার বা পাইকারি ব্যবসায়ী বলা হয়। মুদি মালের পাইকারি ব্যবসায়ীরা এক সাথে অধিক পরিমাণের পণ্য ক্রয় করে। এবং চাহিদা অনুসারে স্বল্প পরিনাণে খুচরা ব্যবসায়ীদের নিকট বিক্রয় করে থাকেব। মুদি মালের পাইকারি ব্যবসায়ীরা সাধারত আর্থিক ভাবে স্বচ্ছল হয়।এই পাইকারি ব্যবসায় অধিক পুজির প্রয়োজন হয়ে থাকে। পাইকার হলো বিপণন মধ্যস্হ প্রতিষ্ঠান যারা প্রাথমিকভাবে খুচরা ব্যবসায়ী বা ক্রেতাদের কাছে বিক্রয় করে।

মূলধন

আপনারা সবাই জানেন যে খুচরা ব্যবসা থেকে পাইকারি ব্যবসায় অনেক বেশি পুজির প্রয়োজন। যাদের পুজি বেশি আছে তারা পাইকারি ব্যবসা করতে পারেন। সাধারন্ত মুদি মালের পাইকারি ব্যবসা করতে হলে ৮ – ১০ লাখ টাকা পুজির ধরকার।

See also  খাটি দুধের পাইকারি ব্যবসা! ৪ হাজার টাকা পুজি নিয়ে মাসে ৫০ হাজার টাকা ইনকাম করুন

দোকান ঘর

পাইকারি ব্যবসা করতে হলে প্রথমে আপনার একটি দোকানের প্রয়োজন হবে। আপনার যদি নিজিস্ব দোকান থাকে তাহলে ভালো আর যদি না থাকে তাহলে আপনাকে বাজারের মেইন গলিতে দোকান বাড়া লইতে হবে। যাতে করে আপনার দোকানটা ক্রেতাদের চখের সামনে পরে । তাছার আপনার দোকানটাকে খব সহজে বাহির করতে পারে। তাছারা আপনার দোকানটাকে এমন ভাবে সজিয়ে রাখতে হবে যাতে করে ক্রেতাদের নজর কারার মতো।

অতিরিক্ত লোক

পাইকারি ব্যবসা করতে হলে অতিরিক্ত লোকের প্রয়োজন হয়। এবং আপনার ব্যবসায় সাফলতা আনতে আপনার সৎ লোকের প্রয়োজন। এবং অবিকগ লোকের প্রয়োজন।

খুচরা ব্যবসায়ী

মুদি মালের পাইকারি ব্যবসা করতে হলে আপনার এলেকা বা বাজারের খুচরা মুদি ব্যবসায়ীদের সাথে পরিচিত থাকতে হবে। যাতে করে আপনার পণ্য বিক্রয় করতে কোন সমস্যা না হয়। এবং আপনাকে খুচরা ব্যবসায়ীদের সাথে ভালো ব্যবহার করতে হবে।

পণ্য কী?

পাইকারি ব্যবসা করে হলে আপনাকে আগে পণ্যের নাম জানতে হবে। এবং আপনার পতিষ্ঠানের জন্য ভালো কোম্পানি পণ্য ক্রয় করতে হবে। যে পণ্য গুলোর সাথে মানুষের পরিচিত আছে। এবং যে পণ্য গুলোর চাহিদা অনেক বেশি বয়েছে। যাতে করে ক্রেতারা আপনার পণ্যটাকে ক্রয় করতে আক্রহ হয়। ক্রেতাদের নজর কারার মতো পণ্য ক্রয় করতে হবে।

মার্কেটিং কী?

আপনি ইচ্ছা করলে দোকানের পণ্য গুলা একজন অতিরিক্ত লোক নিয়ে মার্কেটিং করতে পারেন। কারণ বর্তমানে প্রতিটি গ্রামে গ্রামে ছোট ছোট বাজার রয়েছে। সেগুলোতে কোন বড় কোম্পানি তাদের নিকট পণ্য পৌছে দেয় না সে জন্য আপনি নিজে তাদের কাছে খুব সহজে পণ্য পৌছে দিতে পারবেন।

পাইকারি ব্যবসায় লাভ

আপনি যদি মাসে ৮০ – ৯০ লাখ টাকার মাল বিক্রয় করতে পারেন তাহলে আপনার মাসে দুই থেকে তিন লাখ টাকা ইনকাম করতে পারবেন।। ধন্যবাদ।

See also  চাউলের পাইকারি ব্যবসা! ১ লাখ টাকা পুজি নিয়ে মাসে ইনকাম করুন ৫০ হাজার টাকা